সর্বশেষ

গুড়িয়ে দেয়া হলো ৪ অবৈধ ইট ভাটা

মৌলভীবাজারের রাজনগর ও কুলাউড়া উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ৪টি ইটভাটা গুড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার সকাল থেকে পরিবেশ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ইসরাত জাহান পান্নার নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়।

জানা যায়, সকাল সাড়ে ৯ টায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের মুরালী গ্রামে কাজী খন্দকার ব্রিকস এ অভিযান চালানো হয়। এসময় পরিবেশ বান্ধব উপায়ে ইট তৈরি না করায় উক্ত ভাটার চুলা ভেঙ্গে প্রস্তুতকৃত ইট গুড়িয়ে দেয়া হয়। অভিযানের সময় ওই ইটভাটার মালিক উপস্থিত না থাকায় পরিবেশ অধিদপ্তরের কার্যালয়ে স্বশরীরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। পরে একই ইউনিয়নের কর্ণিগ্রাম এলাকায় অবস্থিত এস.কে ব্রিকসকে নিয়ম না মেনে কাঠ পুড়ানো ও পরিবেশ বান্ধব চুলা না থাকার অভিযোগে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। তাৎক্ষনিক ২ লাখ টাকা আদায় করে বাকী টাকা সময় বেঁধে পরিশোধের নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া দুপুর আড়াইটার দিকে একই ইউনিয়নের মহাসহস্র গ্রামের এম.আর ব্রিকস নামে একটি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ভাটার চুলা ভেঙ্গে দেয়া হয়। পরে বিকেলে কুলাউড়া উপজেলার খান ব্রিকস এ অভিযান চালিয়ে চুল্লিগুলো গুড়িয়ে দেয়া হয়। জেলায় মোট ১১টি অবৈধ কারখানায় এঅভিযান পর্যায়ক্রমে চালানো হবে হবে বলে জানায় পরিবেশ অধিদপ্তর।

পরিবেশ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলার সহকারী পরিচালক বদরুল হুদা বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক স্যারের নেতৃত্বে রাজনগর ও কুলাউড়ার ৪টি ইটভাটায় অভিযান চালানো হয়েছে। এদের মধ্যে কর্ণিগ্রাম এলাকার এস.কে ব্রিকসকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ