সর্বশেষ

‘বাংলাদেশের কাছে মেডিকেল সরঞ্জাম চেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র’

যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশের কাছে মেডিকেল সরঞ্জাম চেয়েছে বলে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তাদের দেশে মেডিকেল ইকুইপমেন্ট পাঠানোর জন্য আমাদের কাছে অনুরোধ করেছে।

তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারী আকার নেয়ায় প্রত্যেক দেশেই করোনাভাইরাস সংক্রান্ত মেডিকেল ইকুইপমেন্টের চাহিদা খুব বেড়েছে। কয়েকটি দেশ তাদের দেশে এই মেডিকেল ইকুইপমেন্ট দেয়ার জন্য আমাদের অনুরোধ করেছে। এমনকি স্বয়ং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও তাদের দেশে পাঠানোর জন্য আমাদের কাছে অনুরোধ করেছে। আমাদের ব্যবসায়িক মহল তাদের অনুরোধ বিবেচনা করছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান।

তিনি বলেন, সৌভাগ্যের বিষয় এই যে, আমাদের দেশে অনেক ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এগুলো তৈরির কাজে প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। আমাদের স্বাধীনতার দিন অর্থাৎ ২৬ মার্চ চীন সরকার তাদের প্রতিশ্রুত দশ হাজার টেস্টিং কিটস এবং দশ হাজার প্রটেকটিভ গাউন এবং এক হাজার ইনফ্রারেড থার্মোমিটার আমাদের গিফট হিসেবে হস্তান্তর করবে। এবং দুই দিন পর আরো ১৫ হাজার এন ৯৫ মাস্ক হস্তান্তর করবে।

করোনার কারণে দেশের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে জানিয়ে এ কে আবদুল মোমেন আরও বলেন, সংক্রমণের কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের বাজারে পণ্যসামগ্রী রফতানিতে বড় ধরণের আঘাত এসেছে। ইতিমধ্যে বিজিএমইএর তথ্যমতে দুই বিলিয়ন ডলারের রফতানি মূল্য থেমে গেছে এবং কয়েক লাখ শ্রমিক বেকার হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

এ ছাড়াও করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের রেমিট্যান্স প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হতে পারে।

তিনি বলেন, এসব বিষয় বিবেচনায় বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও জি-৭ দেশগুলো অবহিত করেছে যাতে এ বিশেষ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ