সর্বশেষ

করোনা মোকাবিলা করুন মেগা প্রকল্প স্থগিত করে : ২০ দল

২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটে মেগা প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ হওয়া অর্থ স্থগিত রেখে করোনা সংকট মোকাবিলায় প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের দাবি জানিয়েছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে এই দাবি করা হয়েছে বলে সোমবার দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন জোটের সমন্বয়কারী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। এর আগে গত রোববার ২০ দলীয় জোটের এক ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। জোটের সভায় নেওয়া সিদ্ধান্তগুলো জানাতে ওই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে করোনা শনাক্তে দৈনিক কমপক্ষে ৬০ হাজার নমুনা পরীক্ষা ও সব হাসপাতাল-ক্লিনিকে আইসিইউ-ভেল্টিলেশনের ব্যবস্থা করে করোনা চিকিৎসার উপযোগী করার দাবি জানান নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, দেশের প্রত্যেকটি শ্রম ঘন এবং ঘন বসতিপূর্ণ অঞ্চলে কোবিড পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য অস্থায়ী হাসপাতাল স্থাপনে এবং পরবর্তিতে সেগুলো সরকারি-বেসরকারি যৌথ মালিকানায় পরিচালনার জন্য ২০ দল প্রস্তাব করছে। সমাজের অর্থবান ব্যক্তিদের এ ব্যাপারে উদ্যোগী হওয়ার জন্য আমরা আহবান জানাচ্ছি। ২০ দল মনে করে এ ব্যাপারে সরকার আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহ ও বন্ধু প্রতীম বিভিন্ন রাষ্ট্র সহযোগিতা করতে পারে। দেশের সব রাজনৈতিক দল, শ্রেণি-পেশার সংগঠন, সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের সম্মিলিত ও সক্রিয় প্রয়াসই শুধু দেশবাসীকে মহামারির ভয়াল প্রকোপ থেকে বাঁচাতে পারে বলেও জানান তিনি। এ সময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট নিয়ে অহেতুক সময়ক্ষেপণ করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, বিদেশ থেকে নিম্নমানের কিট, মাস্ক, পিপিইসহ সুরক্ষা সামগ্রী আমদানিতে সীমাহীন দুর্নীতি হয়েছে। নিম্নমানের সুরক্ষা সামগ্রীর ব্যবহার অসংখ্য রোগী এবং সম্মুখযোদ্ধা স্বাস্থ্যসেবীসহ বহু জনের অকাল মৃত্যুর কারণ হয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে বেকার হয়ে পড়া এবং দিন আনে দিন খায় এমন দরিদ্র পরিবারের জন্য রেশন কার্ডের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সরবরাহেরও দাবি জানান নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, করোনা সংকটে পাঁচ লাখ কোটি টাকারও বেশি বাজেট হটকারী। এই বাজেটে দরিদ্র গণমানুষের কোনো কল্যাণ নয়, ধনবান ও ক্ষমতাসীনদের স্বার্থ রক্ষা করবে। বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ, এডিবি, দেশীয় প্রতিষ্ঠান সিপিডিসহ আন্তর্জাতিক কিংবা দেশীয় প্রতিষ্ঠানের কোনো মতামতকে গুরুত্ব না দিয়ে যে বাজেট প্রণয়ন করা হলো তা দরিদ্র গণমানুষের কোনো কল্যাণ করবেন না। ধনবান এবং ক্ষমতাসীনদের স্বার্থ রক্ষা করবে। তাই ২০ দল এই বাজেট প্রত্যাখ্যান করছে। জোটের সমন্বয়ক আরও বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর নিবন্ধনে নির্বাচন কমিশনের রাজনৈতিক দল নিবন্ধন আইন-২০২০ নামে নতুন আইন প্রণয়নের উদ্যোগ অসময়োপযোগী, অপ্রয়োজনীয় ও উদ্দেশ্যমূলক বলে মনে করছে ২০ দলীয় জোট।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ