সর্বশেষ

দুটো হোটেলের ব্যাবস্থা ও শাবির ল্যাব দ্রুত চালুরর নির্দেশ

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ ও ত্রাণ কার্যের সমন্বয়ে সিলেট জেলার দায়িত্বে থাকা বস্ত্র ও পাট সচিব লোকমান হোসেন মিয়া শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা সনাক্তের ল্যাব দ্রুত চালু ও সিলেটে করোনা চিকিৎসায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য দুটি হোটেলের ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছেন। 

২৮ এপ্রিল (মঙ্গলবার) সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসা ও সার্বিক প্রস্তুতি দেখতে এসে তিনি এ নির্দেশনা দেন।

পরিদর্শনকালে সচিব শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের চলমান আইসিইউ ও ডায়ালাইসিস বেড বসানোর কাজ দ্রুত সম্পন্নের তাগিদ দেন। ওসমানী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে চাপ কমানো, আরো দ্রুত রিপোর্ট প্রদান ও পরীক্ষার পরিমাণ বাড়াতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনা সনাক্তের ল্যাব দ্রুত চালুর তাগিদ দেন সচিব।

পরিদর্শন শেষে বস্ত্র ও পাট সচিব লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনা চিকিৎসার সম্মুখযোদ্ধা। সর্বাগ্রে তাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করতে হবে। হাসপাতালে কাজ শেষে তারা বাসায় ফিরে যাওয়া নিরাপদ নয়। তাদের জন্য আলাদা আবাসনের প্রয়োজন। এজন্য সিলেটে ভালোমানের অন্তত দুটি হাসপাতাল রিকুইজেশন করা প্রয়োজন। এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

হাসপাতাল পরিদর্শনকালে সচিবের সাথে ছিলেন, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মশিউর রহমান, জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. ইউনুছুর রহমান, উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা শফিউল আলম জুয়েল প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ