সর্বশেষ

করোনায় মৃত্যুবরণকারী সিলেটের ডাক্তারের দায়িত্ব নেবে সরকার

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈনুদ্দিনের পরিবারের সব দায়িত্ব সরকার নেবে বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন।
বুধবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে লাইভ ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ এ কথা জানিয়েছেন।
ডা. আজাদ বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীকে ডা. মঈনের মৃত্যুর বিষয়টি অবহিত করি। তিনি এ বিষয়ে গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন এবং মরহুমের পরিবারকে সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।
‘তিনি (প্রধানমন্ত্রী) একইসঙ্গে আশ্বস্থ করেছেন, মরহুমের পরিবারের সকল দায়দায়িত্ব সরকার নেবে। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী সরকারের পক্ষ থেকে যে বিমা ও অন্যান্য সুবিধা ঘোষণা করেছেন, মরহুমের পরিবার তাড়াতাড়ি যাতে লাভ করেন সে বিষয়েও আশ্বস্থ করেছেন তিনি।’
স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী সকল চিকিৎসক, নার্স ও অন্য যারা স্বাস্থ্য সেবা দিচ্ছেন তাদের ব্যাপারেনিশ্চয়তা দিয়ে বলেছেন, বর্তমান সরকার সব সময় তাদের পাশে আছে।
ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, কোভিড রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হন ডা. মঈন। তিনি মৃত্যুর আগে কুর্মিটোলা হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন ছিলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা তার যাবতীয় সুচিকিৎসার জন্য ব্যবস্থা করে আসছিলাম।
প্রসঙ্গত গত ৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় ডা. মঈনুদ্দিনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর অবস্থার অবনতি হলে ৭ এপ্রিল শহীদ ডা. শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে নেয়া হয় তাকে।
সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে আনা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল পৌনে ৭টার দিকে মারা যান মেডিসিন ও হার্ট স্পেশালিস্ট ডা. মঈনুদ্দিন।

(যুগান্তর)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ