সর্বশেষ

ফ্রান্সে প্রাণ গেল ১৬ জনের

মরণঘাতী করোনাভাইরাসে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে ফ্রান্সে ১৬ জন মারা গেছে। এ ভাইরাসে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৯৪৯ জন। শনিবার (৭ মার্চ) ফ্রান্সের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জেরমি সলোমন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রতিবেশী ইতালিতে করোনাভাইরাস ব্যাপক আকারে বিস্তার লাভের পর থেকে সর্বোচ্চ সতকর্তা ও আগাম সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ফ্রান্স।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২ হাজার ২৩৭। এছাড়া করোনায় আক্রান্ত ৫৭ হাজার ৬২২ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখন পর্যন্ত ৯৭টি দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে।

শুধুমাত্র চীনের মূল ভূখণ্ডেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮০ হাজার ৬৫১ এবং মারা গেছে ৩ হাজার ৭০ জন। চীনের পর করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ কোরিয়ায়। দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজার ৭৬৭ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪৪ জনের।

চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ইতালিতে। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজার ৬৩৬ এবং মৃত্যু হয়েছে ১৯৭ জনের। অপরদিকে, ইরানে এখন পর্যন্ত চার হাজার ৭৪৭ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে ১২৪ জন।

করোনাভাইরাসে জাপানে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে একজন প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেস ক্রুজে ছিলেন বলে শনিবার (৭ মার্চ) জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। জার্মানিতে এই ভাইরাসে ৬৭০ জন আক্রান্ত হয়েছে। স্পেনে আক্রান্ত ৪শ এবং মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের, যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ২৭২, মৃত্যু ১৫। সুইজারল্যান্ডে আক্রান্ত ২১৪ এবং মারা গেছে ১ জন, যুক্তরাজ্যে আক্রান্ত ১৬৪ মৃত্যু ২। ইরাকে আক্রান্ত ৪৮, মৃত্যু ৪। ভারতে ৩১ জন আক্রান্ত হয়েছে। তবে দেশটিতে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগীর প্রাণহানি ঘটেনি।

এছাড়া সুইডেনে আক্রান্ত ১৩৭, সিঙ্গাপুরে ১৩০, নেদারল্যান্ডসে আক্রান্ত ১২৮ এবং মৃত্যু ১, নরওয়েতে আক্রান্ত ১২৭, বেলজিয়ামে ১০৯, হংকংয়ে ১০৮, মালয়েশিয়ায় ৮৩, অস্ট্রিয়ায় ৬৬, অস্ট্রেলিয়ায় আক্রান্ত ৬৩, মৃত্যু ২, বাহরাইনে ৬০, কুয়েতে ৫৮, কানাডায় ৫১, থাইল্যান্ডে ৪৮ এবং মৃত্যু ১, তাইওয়ানে আক্রান্ত ৪৫ এবং মৃত্যু ১, গ্রিসে ৪৫, আমিরাতে ৪৫, আইসল্যান্ডে ৪৩, সান মারিনোতে ২৩ জন আক্রান্ত এবং মৃত্যু ১, ডেনমার্কে আক্রান্ত ২৩, লেবাননে ২২, ইসরাইলে ২১, চেক রিপাবলিকে ১৯, আয়ারল্যান্ডে ১৮, ফিনল্যান্ডে ১২, আলজেরিয়ায় ১৭ এবং ভিয়েতনামে ১৭ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

অপরদিকে, ওমানে ১৬, ফিলিস্তিনে ১৬, মিসরে ১৫, ফিনল্যান্ডে ১৫, ব্রাজিলে ১৩, ইকুয়েডরে ১৩, পর্তুগালে ১৩, রাশিয়াতে ১৩, ক্রোয়েশিয়ায় ১১, কাতারে ১১, ম্যাকাউতে ১০, এস্তোনিয়ায় ১০, জর্জিয়ায় ৯, রোমানিয়ায় ৯, আর্জেন্টিনায় ৮, স্লোভেনিয়ায় ৮, আজারবাইজানে ৬, বেলারুশে ৬, মেক্সিকোতে ৬, পাকিস্তানে ৬, ফিলিপাইনে আক্রান্ত ৫ এবং মৃত্যু ১, সৌদি আরবে ৫, চিলিতে ৫, পোল্যান্ডে ৫, ইন্দোনেশিয়ায় ৪, নিউজিল্যান্ডে ৪, সেনেগালে ৪ ও হাঙ্গেরিতে ৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন

এছাড়া লুক্সেমবার্গে ৩, উত্তর মেসিডোনিয়ায় ৩, বসনিয়ায় ৩, ডোমিনিক প্রজাতন্ত্রে ২, মরক্কোতে ২, আফগানিস্তান, আন্দোরা, আর্মেনিয়া, কম্বোডিয়া, জর্ডান, লাটভিয়া, লিথুনিয়া, মোনাকো, নেপাল, নাইজেরিয়া, শ্রীলঙ্কা, তিউনিসিয়া, ইউক্রেন, ভুটান, কোস্টারিকা, ভ্যাটিকান সিটি, গিব্রালটার, পেরু, সার্বিয়া, স্লোভাকিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং টোগোতে একজন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ