সর্বশেষ

স্ত্রীকে নির্যাতন, অভিযুক্তকে ধরতে গিয়ে আরেক কিশোরীকে উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিয়ের প্রলোভনে এক কিশোরীতে ৩ মাস ধরে আটকে রেখে ধর্ষণ ও নিজের স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে শাহ আলম আহমদ মানিক(৩৬) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী ও নির্যাতিতা গৃহবধূকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মানিক মৌলভীবাজারের রাজনগর থানার নিজগাঁওয়ের মৃত আব্দুল খালিকের ছেলে।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) মো. জেদান আল মুসা জানান, গত ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যায় এক মহিলা মোগলাবাজার থানা পুলিশকে খবর দেন- তার বোনকে স্বামী শাহ আলম আহমদ মানিক মোগলাবাজার থানার গোটাটিকর এলাকার জুবেল মিয়ার কলোনির একটি ঘরে আটকে রেখে মারধর করছেন। খবর পেয়ে মোগলাবাজার থানা পুলিশের একটি টিম ওই কলোনিতে উপস্থিত হয়ে দেখতে পান আরেক কিশোরীকে ৩ মাস যাবৎ বিয়ের প্রলোভনে আটকে রেখে ধর্ষণ করে চলেছে অভিযুক্ত মানিক।

এসময় মোগলাবাজার থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার পলাশ রঞ্জন দে, অফিসার ইনচার্জ আখতার হোসেনসহ পুলিশের আরেকটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে শাহ আলম আহমদ মানিককে গ্রেফতার করেন।

এ বিষয়ে ভিকটিমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোগলাবাজার থানার মামলা রুজু করা হয়েছে।আসামি শাহ আলম আহমদ মানিককে গ্রেপ্তার পূর্বক আদালতে সোপর্দ করা হয় এবং ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ওসিসি, সিলেটে প্রেরণ করা হয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ