সর্বশেষ

তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

 

আফগানিস্তানের ক্ষমতা গ্রহণের পর এই প্রথমবারের মত তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কর্মকর্তা এবং তালেবানের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এপি এ তথ্য নিশ্চত করেছে। এপি জানায় আগামী সপ্তাহেরর শনি ও রোববার কাতারের রাজধানী দোহায় এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

উভয় পক্ষের কর্মকর্তারা জানান, বৈঠকে আফগানিস্তানে উগ্রবাদী গোষ্ঠীগুলোকে নিয়ন্ত্রণে করণীয় নির্ধারণে আলোচনা হবে। এছাড়া আফগানিস্তানে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিক ও কিছু আফগান নাগরিককে সরিয়ে নেওয়ার বিষয়েও আলোচনা হবে।

এদিকে কাতারের দোহায় অবস্থানরত তালেবান মুখপাত্র সুহাইল শাহিন এপি-কে জানান, ২০২০ সালে স্বাক্ষরিত তালেবান-ওয়াশিংটন শান্তিচুক্তি পুনর্বিবেচনা হবে এই আলোচনায়। এছাড়া বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং দোহা চুক্তির বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

এ বছরের ১৫ আগস্ট প্রায় কোন রকম বাধা ছাড়ায় কাবুলে প্রবেশ করে তালেবান। দেশ ছেড়ে পালান সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি। এক পর্যায়ে শান্তি চুক্তি অনুযায়ী আফগানিস্তান ছাড়ে মার্কিন বাহিনী। ২০ বছর পর দেশটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের পর তালেবানের সঙ্গে মার্কিন কর্মকর্তাদের এটিই প্রথম আনুষ্ঠানিক বৈঠক।

 

দোহায় অবস্থানরত তালেবান মুখপাত্র সুহাইল শাহিন বার্তা সংস্থা এপি-কে বলেন, আলোচনায় ২০২০ সালে স্বাক্ষরিত তালেবান-ওয়াশিংটন শান্তিচুক্তি পুনর্বিবেচনা হবে। ওই চুক্তিই মার্কিন বাহিনীর আফগানিস্তান ত্যাগের পথ সুগম করে।

সুহাইল শাহিন বলেন, বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এবং দোহা চুক্তির বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।আরেকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বৈঠকে সন্ত্রাসবাদ নিয়েও আলোচনা হবে।

তবে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি না হওয়ায় তিনি নাম প্রকাশে রাজি হননি।সম্প্রতি আফগানিস্তানে আইএসের হামলা বেড়ে গেছে।

সর্বশেষ গত শুক্রবার কুন্দুজ প্রদেশের শিয়া মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস। ওই বিস্ফোরণে অন্তত ১০০ জন নিহত হয়েছে।

 

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ