সর্বশেষ

সুনামগঞ্জে প্রচারণায় মাইকিং বন্ধ রাখছেন মেয়রসহ ৯ কাউন্সিলর প্রার্থী

Miking is going on of the announcement of the upcoming eye camp in Narsingdi, Bangladesh.

আগামী ১৬ জানুয়ারী সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন। পোস্টার-ব্যানারে ছেয়ে গেছে পৌর এলাকার প্রতিটি প্রধান রাস্তাসহ অলি-গলি। মেয়র-কাউন্সিলর প্রার্থীরা দিন-রাত ছুটে চলেছেন ভোটারের দ্বারে দ্বারে। পাশাপাশি ‘ভোট চাই ভোটারের-দোয়া চাই সকলের’ এমন মাইকিং প্রচারণায় অতীষ্ট পৌরবাসী। তবে এবার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন বর্তমান মেয়র নাদের বখত, বিএনপির মেয়র প্রার্থী মুর্শেদ আলসহ ৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থী। তাদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন পৌরবাসী। শতবর্ষী সুনামগঞ্জ পৌরসভার মোট ভোটার ৪৭ হাজার ১৫ জন। ভোট কেন্দ্র ২৩ টি। এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে ৩ জন, সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৪৮ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৩ জনসহ মোট ৬৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ৩০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে শুরু হয়েছে প্রচারণা। ৬৪ প্রার্থীর মাইকিং এর শব্দ যন্ত্রণায় পৌরবাসী যখন অতীষ্ট তখন শব্দ দূষনে প্রথমে এগিয়ে আসেন ৫ নং ওয়ার্ডের ৯ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী। তারা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাইকিং বন্ধ রেখেছেন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসিত হলে একই পথে হাঁটলেন দুই মেয়র প্রার্থী; আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র নাদের বখত ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী মুর্শেদ আলম।
সাধারণ নাগরিকদের শব্দ দূষণ থেকে দূরে রাখতে দুই মেয়র ও ৯ কাউন্সিলর প্রার্থীর মাইকিং বন্ধ থাকার উদ্যোগটিকে ইতিবাচক দেখছেন পৌরবাসী। প্রার্থীদের মাইকিং বন্ধ করার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন সাধারণ ভোটারসহ সচেতনমহল। ভোটারদের দাবি, প্রতিটি নির্বাচনেই যদি এভাবে সকল প্রার্থী ঐক্যবদ্ধভাবে মাইকিং বন্ধ রাখেন তাহলে সাধারণ মানুষ শব্দ দুষণ থেকে রক্ষা পাবে। ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী গোলাম সাবেরীন সাবু বলেন, সাধারণ ভোটারদের শব্দ দূষণ থেকে থেকে রক্ষা করতে এবং ভোটাররা যেন বিরক্তবোধ না করেন তাই সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে আমরা মাইকিং বন্ধ রেখেছে। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মেয়র প্রার্থী নাদের বখত বলেন,‘ নির্বাচনকালীন সময়ে প্রচুর মাইকিং এর কারণে অনেক মানুষকে শব্দ দূষণে আক্রান্ত হন। বিশেষ করে বয়ষ্ক ও রোগীরা আছেন। সেই কারণে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি মাইক ব্যবহার করব না। বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মুর্শেদ আলম বললেন, শব্দ দূষণে যাতে পৌরবাসীর সমস্যা না হয় সেই জন্য মাইকিং প্রচারণা বন্ধ রেখেছি। তবে লিফলেট বিতরণ এবং ক্যাম্পইন চলবে। কারণ আমি মানুষকে কষ্ট দিতে চাই না।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ