সর্বশেষ

আফরান নিশো ভক্তদের অভিনয়ে সুযোগ দেবেন

দেশের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে অভিনেতা আফরান নিশোর অসংখ্য ভক্ত অনুরাগী। যারা তাকে পাগলের মতো ভালোবাসেন। পছন্দের মানুষটির সঙ্গে একটু দেখা করতে তাদের কতই না আবদার, কতই না ব্যাকুলতা। তবে ভক্তদের সেই ব্যাকুলতার অবসান ঘটে এই অভিনেতার জন্মদিনে। এই দিনটিতে তার ভক্তরা একটি গেট টুগেদার আয়োজন করেন এবং কেক কাটার মধ্য দিয়ে তাদের প্রিয় অভিনেতার সঙ্গে একটি সুন্দর মুহূর্ত উদযাপন করেন।

মঙ্গলবার ছিলো ছোট পর্দার জনপ্রিয় এই অভিনেতার জন্মদিন। আর সেই দিনকে ঘিরে রাজধানীর উত্তরার একটি রেস্তোরায় তার ভক্ত অনুরাগীরা আয়োজন করেছিল একটি ছোট গেট টুগেদারের। প্রিয় অভিনেতার সঙ্গে একটু সুন্দর মুহূর্ত কাটাতে দেশে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুঁটে আসেন অনুরাগীরা। নিশো তাদের সঙ্গে জন্মদিনের কেক কেটে দিনটি উদযাপন করেন বেশ সানন্দে।

তবে মজার বিষয় হলো, নিশো ভক্তের অনেকেরই অনুরোধ তার সঙ্গে একটি নাটকে কিংবা একটি দৃশ্যে অভিনয় করার। গতকালের আয়োজনে এমন অভিমত ব্যক্ত করেন অনেকেই। নিশো সেই অনুরোধ ফেলেননি। জানিয়েছেন ভক্তদের অভিনয় করার সুযোগ করে দেবেন তিনি।

সেখানে আফরান নিশো বলেন, অনেকেই আমার সঙ্গে অভিনয় করতে চান; এমন অনেক অনুরোধ পেয়েছি আমি। বেশিরভাগই যে অনুরোধ পেয়েছি সেটা হলো, আমার সঙ্গে একটি দৃশ্যে হলেও অভিনয় করতে চান, ছোট ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করতে চান… এরকম অনেক! এটা হলো শখের চাওয়া। আর এরকম শখের চাওয়া হলে অভিনয় করতে হবে না।

তবে হ্যাঁ, কেউ যদি বলে আমার অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ আছে, আমি অভিনয় করতে চাই; আর সেটা যদি হয় মন থেকে; তাহলে আমি অবশ্যই সেই সুযোগ দেবো। অভিনয়টা মন থেকে আসতে হবে, ভালবাসতে হবে; তখনই কিছু করা সম্ভব। শখের বসে হলে অভিনয় করতে আসার দরকার নেই। এমনটাই জানিয়ে দেন এই ‘ভার্সেটাইল’ অভিনেতা।

জন্মদিনে ভক্তদের সঙ্গে সময় কাটানো নিয়ে আফরান নিশো বলেন, এরা হচ্ছে আমার পাগলা ভক্ত। এদেরকে কিছু না করলে এরা আরও বেশি করে সেটা করে। এই করোনার মধ্যে কোন আয়োজন করবো না বলেছি, এরপর তারা নিজেরা নিজেরা টি শার্ট সাথে মাস্ক বানিয়ে রেডি করে নিয়ে আসছে, তবু তারা আমার সাথে কেক কাটবেই; এই হচ্ছে আমার ভক্ত। তবে তাদের সবাইকে আমি প্রচন্ড ভালোবাসি। এমন ভালোবাসাতেই বেঁচে থাকতে চাই সবসময়, এটাই চাওয়া।

তিনি আরও বলেন, জন্মদিন এলেই আমার মন খারাপ হয়। বাবা তো নেই, তাই মায়ের কাছে গিয়ে বসে থাকি, মায়ের কোলে শুয়ে থাকি। এখানেই আমার শান্তি। আমার কাছে মনে হয়, জন্মদিন মানেই নিজের জীবন থেকে একটা বছর চলে যাওয়া। কিন্তু এই সময়টাতে কি করেছি বা কি করতে পেরেছি? কিছুই করতে পারিনি! হয়তো জীবনে অনেক কিছু করা দরকার ছিলো! এই দিনটা এলেই মনে হয়, আরও একটা বছর চলে গেলো অথচ কিছুই করতে পারলাম না।

প্রসঙ্গত, নব্বইয়ের শেষের দিকে মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও এখন নিজেকে অভিনয়েই থীতু করেছেন আফরান নিশো। শখের বশে নয়, জেদ করে হয়েছেন অভিনেতা। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে কাজ করেছেন অসংখ্য নাটক ও টেলিফিল্মে। কাঠখড় পুড়িয়ে হয়ে উঠেছেন পরিচালকদের ভরসার পাত্র। নিজেকে তৈরি করেছেন একজন প্রতিষ্ঠিত অভিনেতা হিসেবে।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ