সর্বশেষ

সিলেটে স্বৈরাচার পতনের ৩০তম দিবস পালিত

স্বৈরাচার এরশাদের ৩০তম পতন দিবসে ৮০’র দশকের সিলেটের ছাত্রনেতাদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান গত রোববার রাতে নগরীর চৌহাট্টাস্থ একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়। ৮০ দশকের অন্যতম ছাত্রনেতা জাকির আহমদের সভাপতিত্বে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু হয়। এটিএম এ হাসান জেবুল ও ম. মোসাহিদ এর পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, জিয়াউর রহমান মোর্শেদ, এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, প্রদীপ ভট্টাচার্য, আবুল কাহের শামীম, আসাদ উদ্দিন আহমদ, বিজিত চেীধুরী, এটি এম ফয়েজ, হাবিবুর রহমান, অধ্যাপক জাকির হোসেন, ফজলুল্লাহ ফারুকী আদনান, রুহুল কুদ্দুস বাবুল, জগদীশ চন্দ্র দাশ, সুজাত আলী রফিক, মোহাম্মদ শাহজাহান, শাহ মোশাহিদ আহমদ, মুজিবুর রহমান শওকত, এনামুল মনির, নুরুল ইসলাম সিপার, মোস্তাফা শাহীন চেীধুরী, ফেরদেীস আরবী, মিজানুর রহমান চেীধুরী, শামসুল বাসিত শেরো, মাহফুজুর রহমান, আব্দুল হানিফ কুটু, সালেহ আহমদ হীরা, জিয়াউল আরেফিন জিল্লুর, রেজাউল হাসান কয়েস লোদী, কামরুল হাসান শাহিন, হারুনুর রশীদ দীপু, মাহবুবুর রব ফয়সল, এডভোকেট আলতাফ হোসেন, মঞ্জুর হাসান গোলাপ, এডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিম, এডভোকেট শামসুল ইসলাম, ইন্দ্রানী সেন প্রমূখ।

পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে তারা আশির দশকে ছাত্রনেতা হিসেবে কাজ করতে গিয়ে আনন্দ বেদনা জড়ানো নিজেদের সংগ্রামী কর্মকান্ডের স্মৃতিচারণ করেন। তারা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রগঠনের স্বপ্ন নিয়ে তারা আশির দশকে যে সংগ্রাম করেছিলেন আজও অসাম্প্রদায়িক সমাজ ও রাষ্ট্র গঠনে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সিলেটে ১৯৮৮ সালে খুন হওয়া মুনীর তপন জুয়েল হত্যার মামলার পুন:তদন্তের মাধ্যমে বিচার দাবী করেন তারা। বিজ্ঞপ্তি

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ