সর্বশেষ

ধর্মঘটে সিলেটে জ্বালানি সংকটের আশঙ্কা

সিলেটের বাবনা পয়েন্টে দুর্বৃত্তদের হাতে ট্যাংক লরি শ্রমিক নেতা ইকবাল হোসেন রিপন হত্যার প্রতিবাদে সিলেট সহ ১০ জেলায় ট্যাংক লরি শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে সিলেটে জ্বালানি সংকটের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। অতিসত্ত্বর ফিলিং স্টেশনে জ্বালানি তেল সরবরাহ স্বাভাবিক না হলে দু’একদিনের মধ্যেই সিলেট সহ ১০ জেলায় তীব্র জ্বালানি সংকট দেখা দেবে। নগরীর বিভিন্ন পেট্রোল পাম্পে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অধিকাংশ পেট্রোল পাম্পেই জ্বালানি প্রায় ফুরিয়ে এসেছে। এমতাবস্থায় শ্রমিকরা তাদের ধর্মঘট প্রত্যাহার না করলে জন জীবনে এর প্রভাব পড়তে শুরু করবে।

করোনাভাইরাস জনিত কারণে ইতিমধ্যেই গণপরিবহের ভাড়া বাড়িয়ে দেড়গুণেরও অধিক করা হয়েছে। এর মধ্যে যদি জ্বালানি সংকট দেখা দেয় তবে জনচলাচল মারাত্মকভাবে ব্যহত হবে। মুল্যবৃদ্ধি পেতে পারে নিত্য প্রয়োজনী দ্রব্যাদির।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুলাই সিলেটের বাবনা পয়েন্টে সিলেট বিভাগীয় ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন রিপন এবং তার সাথে থাকা অপর শ্রমিক বাবলা আহমদ তালুকদার দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতের শিকার হন। এতে রিপনের মৃত্যু ঘটে এবং বাবলা গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় দক্ষিণ সুরমা থানায় ২০ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন নিহতের স্ত্রী ফারজানা আক্তার। পুলিশ নোমান ও সাদ্দাম নামের দুইজনকে গ্রেপ্তারও করেছে ।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ