সর্বশেষ

করোনার নতুন ১৩ উপসর্গ

জাপানের চিকিৎসকরা করোনাভাইরাসের ১৩টি নতুন উপসর্গের খোঁজ পেয়েছেন। জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বর্তমানে হালকা উপসর্গ দেখা দেয়া অনেক রোগীকে বাড়িতে থাকতে কিংবা বিশেষভাবে ব্যবস্থা করে নেয়া হোটেলে রাখছেন তারা।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাব্য ব্যক্তিদের সতর্কসংকেত হিসেবে ১৩টি উপসর্গ চিহ্নিত করেছে।

হাসপাতালগুলোর ওপর অযথা চাপ সৃষ্টি হওয়া কিছুটা হলেও কমিয়ে আনতে এই ব্যবস্থা নিয়েছেন তারা। খবর এনএইচকে ওয়ার্ল্ড।

নতুন চিহ্নিত করা উপসর্গগুলো দেখা দিলে বিলম্ব না করে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ গ্রহণের সুপারিশ করেছে জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

নতুন উপসর্গগুলো হল : ১. ঠোঁট বেগুনি রঙের হয়ে যাওয়া; ২. দ্রুত শ্বাস নেয়া; ৩. হঠাৎ দম বন্ধ হয়ে আসার অনুভূতি; ৪. অল্প একটু হাঁটাচলা করতেই শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া; ৫. বুকে ব্যথা; ৬. শুয়ে থাকতে না পারা, উঠে না বসলে শ্বাস নিতে না পারা; ৭. শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়া; ৮. হঠাৎ শব্দ করে শ্বাস নিতে শুরু করা; ৯. অনিয়মিত নাড়ির স্পন্দন; ১০. মলিন চেহারা; ১১. অদ্ভুত আচরণ করা; ১২. অন্যমনস্কভাবে প্রশ্নের উত্তর দেয়া এবং ১৩. বিভ্রান্ত হয়ে যাওয়া, উত্তর দেয়ায় অপারগতা।

প্রতিদিনই নতুন নতুন লক্ষণ বের হচ্ছে করোনার। শুকনো কাশি ও প্রচণ্ড জ্বর এবং চরম শ্বাসকষ্ট ছাড়াও পায়ে ক্ষতচিহ্ন, চুলকানি আর অণ্ডকোষে ব্যথাকেও করোনার লক্ষণ বলা হয়েছিল।

পরে শোনা গেল, স্বাদ-গন্ধ লোপ পাওয়া, চোখ গোলাপি হয়ে যাওয়া। পায়ে ক্ষতচিহ্ন, র‌্যাশ ওঠা ও হালকা শীত শীত লাগা লক্ষণের কথাও জানা গেল গত কয়েক সপ্তাহে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ