সর্বশেষ

ছাতকে সন্দেহভাজনদের করোনা নমুনা সংগ্রহ করছেন ডাক্তার সনি

ছাতকে মেডিকেলের ল্যাব টেকনোলজিষ্ট সংকটে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মৃত্যুঝুঁকি উপেক্ষা করে সন্দেহভাজন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ তোফায়েল আহমদ সনি। প্রাণঘাতী সংক্রামক ব্যাধি করোনাভাইরাস নিয়ে আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন মানুষ।
অনেক জায়গায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতেও পিছিয়ে যাচ্ছেন ডাক্তার-নার্সরা। ঠিক সেই সময় গত দু’এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ডাক্তার সনি একাই অর্ধশত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করেছেন। টানা ২৫ দিন ধরে এসব সন্দেহভাজন করোনা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করার পর ল্যাব পর্যন্ত আনা-নেয়া করছেন তিনি। তার সাহসিকতামূলক এ কর্মকান্ডে এরইমধ্যে স্বাস্থ্যবিভাগসহ সাধারণ মানুষের মধ্যেও তিনি ব্যাপক প্রশংসীত হয়েছেন।
এ প্রসঙ্গে ডাঃ তোফায়েল আহমদ সনি বলেন, ডাক্তার মানেই সেবক। দুর্যোগের সময় কাউকে না কাউকে তো এগিয়ে আসতে হবে। হাসপাতালের ল্যাব টেকনোলজিষ্ট মহিলা হওয়ায় এবং পর্যাপ্ত টেকনোলজি না থাকায় ফিল্ডে গিয়ে নমুনা সংগ্রহের জন্য কাউকে পাওয়া যাচ্ছিলো না। তখনই তিনি স্বেচ্ছায় তার আগ্রহের কথা জানান এবং সন্দেহভাজনদের নমুনা সংগ্রহ শুরু করেন।
এ ব্যাপারে ছাতক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ গোলাম কবির জানান, সব ভয়ভীতি ও দ্বিধা কাটিয়ে তিনি যেভাবে নমুনা সংগ্রহের কাজ করে যাচ্ছেন তা প্রশংসনীয়। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টাতেই এই সঙ্কট কাটিয়ে উঠা সম্ভব।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ