সর্বশেষ

মধ্যস্বত্ত্বভোগীদের ধান ক্রয়ের সুযোগ নেই: সুনামগঞ্জে কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন অ্যাপস-এর মাধ্যমে দেশের ২২ জেলা থেকে কৃষককের কাছ থেকে ধান ক্রয় করবে সরকার। সরকারিভাবে কৃষকের কাছ থেকে বোরো ধান ক্রয়ে এবার মধ্যস্বত্ত্বভোগীদের কোন সুযোগ নেই।

কৃষকরা নিজের উৎপাদিত ধান নিজেই বিক্রি করতে পারবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার সাংহাইর হাওরে ধান কাটা পর্যবেক্ষণে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের সারা বছরের মোট চাল উৎপাদনের অর্ধেকের বেশি যোগান দেয় বোরো ধান। সেজন্য শুধু হাওর নয়, সারা দেশের ফসল সুষ্ঠুভাবে ঘরে তোলা জরুরী। এটি করতে পারলে বাংলাদেশের খাদ্য নিরাপত্তা অনেকাংশে নিশ্চিত হবে। কৃষি মন্ত্রণালয় এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে এ ব্যাপারে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
করোনার বিরূপ পরিস্থিতির মধ্যেও হাওরের বোরো ধান কাটার জন্য বিভিন্ন জেলা থেকে শ্রমিকদের আনার ব্যবস্থা করা হয়েছে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী আরও বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন জেলা থেকে শ্রমিকরা এসে ধান কাটছেন। পাশাপাশি হাওরের জন্য জরুরি ভিত্তিতে ধান কাটা যন্ত্রপাতি দেয়া হয়েছে। প্রতিকূল পরিবেশে হাওরের কৃষক যাতে সহজে যন্ত্রপাতি কিনতে পারে সেজন্য যন্ত্রের দামের ৩০% দেয় কৃষক এবং ৭০% দেয় সরকার । একই সাথে, দেশের অন্য এলাকা থেকে হাওরের আগাম বোরো ধান কাটার জন্য হারভেস্টার ও রিপার নিয়ে আসা হয়েছে। এর ফলে ইতোমধ্যে হাওরের ৬৭% বোরো ধান কৃষক ঘরে তুলতে পেরেছেন কৃষক ।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সারাদেশে ধান কাটা সহজতর করতে ২০০ কোটি টাকার মাধ্যমে প্রায় ১৩০০টি কম্বাইন্ড হারভেস্টার ও ৯৩৪টি রিপার, ২২টি রাইস ট্রান্সপ্লানটারসহ বিভিন্ন কৃষি যন্ত্রপাতি কৃষকের কাছে সম্প্রতি পৌঁছে দেয়া হয়েছে বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।

পরে সুনামগঞ্জে বোরো সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করা হয়েছে। দুপুর ১২টায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার লালপুর বাজারে এ অভিযানের উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এবং পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন   পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি, সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবর রহমান মানিক, সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান, সিলেট ও সুনামগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য শামিমা শাহরিয়ার, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ) মো. হাসানুজ্জামান কল্লোল, ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো.শাহজাহান কবীর, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বিপিএম জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র নাদের বখত এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোহাম্মাদ সফর উদ্দিন প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ