সর্বশেষ

লকডাউন শিথিল হচ্ছে ইতালি, ফ্রান্স ও স্পেনে

সারা বিশ্বে মহামারি রূপ নেওয়া করোনাভাইরাসে বিপর্যস্তের তালিকায় প্রথম দিকে রয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালি, ফ্রান্স ও স্পেন। তবে করোনার প্রাদুর্ভাব কিছু কমে আসায় দেশগুলোতে আরোপিত লকডাউন কিছুটা শিথিল করার প্রস্তুতি চলছে।

আজ সোমবার এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় গত মার্চে ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে প্রথম লকডাউন ঘোষণা করে ইতালি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬৭৫ জন, আর মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ৬৪৪ জনের।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপে কন্তের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম ডেইলি লা রিপাবলিকা জানিয়েছে, আগামী ৪ মে থেকে উৎপাদন ব্যবস্থা পুনরায় চালু হতে পারে। তবে স্কুল কলেজ বন্ধ থাকবে। এই সপ্তাহেই এই বিষয়ে বিস্তারিত ঘোষণা আসবে।

অন্যদিকে, করোনায় আক্রান্ত এবং মৃতের হার কমতে থাকায় লকডাউন শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট ১ লাখ ৬২৩ হাজার ১০০ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে ২২ হাজার ৮৫৬ জনের।

সফটওয়্যার স্যলুশন কম্পানি ডারাক্সের পরিসংখ্যান ভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, সারা বিশ্বের মোট ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। এতে বিশ্বের মোট ২৯ লাখ ৯৪ হাজার ৯৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃতু হয়েছে ২ লাখ ৬ হাজার ৯৯৭ জনের। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ লাখ ৭৮ হাজার ৯২৩ জন।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ