সর্বশেষ

নবীগঞ্জ করোনামুক্ত রাখার চেষ্টায় মাঠে রয়েছেন এসিল্যান্ড সুমাইয়া মমিন

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে যখন সারা বিশ্ব বিপদগামী, ঠিক তখনই বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রথম থেকেই কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন। জনগনকে নিরাপদ রাখতে দিন-রাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। হোম কোয়ারেন্টাইন এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে দিনের পর রাতেও পৌরসভাসহ উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ছুটে চলেছেন তিনি।এসিল্যান্ড সুমাইয়া মমিন পৌরসভাসহ উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে সরকারী নির্দেশ মোতাবেক উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে যাচ্ছেন। অভিযানের সময় সার্বক্ষণিক বাজার মনিটরিং করে দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার ভিতরের রাখতে কঠোর ভূমিকা পালন করেছেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন জানান, হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান স্যারের নির্দেশনা অনুযায়ী নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল স্যারের সার্বিক দিকনির্দেশনায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে জনগনকে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে নিজ নিজ ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তবে এক্ষেত্রে বিধি নিষেধ অমান্য করে অল্প কিছু লোক যারা ঘরের বাইরে বের হয়েছিলেন কিংবা কিছু দোকানপাট খোলা রেখেছিলেন তাদের প্রতি সচেতনতার আহবান জানিয়ে বারবার সতর্ক করা হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি আরো জানান, সরকারি নির্দেশনা না মানলে তাদের প্রতি প্রচলিত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।নবীগঞ্জে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় এখানকার জনগণকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার চাঁদরে বেষ্টিত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এ কাজে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নবীগঞ্জ থানা পুলিশ আমাদের সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।কেউ যেন এই মহামারী ভাইরাস করোনা তে অকালে মৃত্যুবরণ না করে বা কারোর পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ না হয়, সে লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি। নবীগঞ্জকে এ মহামারী থেকে বাচাঁতে পারলেই বর্তমান সরকারের তথা আমাদের সবার এ পরিশ্রম স্বার্থক হবে। আসুন আমরা সকলের সচেতনতা বৃদ্ধি করি যেন করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা মোকাবিলা করা সম্ভব হয়।এসময় এসিল্যান্ড সুমাইয়া মমিন তার কার্যক্রমে নবীগঞ্জবাসী ও গণমাধ্যমের কাছে সহযোগিতা কামনা করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ