সর্বশেষ

যুক্তরাষ্ট্রে ৩৯ হাজার ছাড়িয়েছে মৃত্যু

ট্রাম্পের দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় দুই হাজার মানুষ নতুন করে প্রাণ হারিয়েছেন করোনায়। এতে করে যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ৩৯ হাজার ১৪ জনে ঠেকেছে।

অপরদিকে, গত দু’দুনিরে তুলনায় আক্রান্ত কিছুটা কমেছে। শুক্রবার সাড়ে ৩৬ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় তা সাত হাজার কমে ২৯ হাজারের বেশি মানুষের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়। ফলে, দেশটিতে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৭৯২ জনে দাঁড়িয়েছে।

আক্রান্তের মধ্যে ৫৫ হাজারের বেশি মানুষের অবস্থা আশঙ্কজনক। আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন সাড়ে ৬৮ হাজার ২৮৫ জন।

গোটা যুক্তরাষ্ট্রজুড়েই নাজুক অবস্থা। এর মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থায় বৃহত্তম শহর নিউ ইয়র্ক। সেখানে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৪১ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৭ হাজার বেশি ৬৭১। এর মধ্যে শতকের বেশি বাংলাদেশিও রয়েছে। রাজ্যটিতে ইতিমধ্যে আগামী ৩ মে পর্যন্ত লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন সংকটাবস্থায়ও অর্থনীতির চাকা সচল করার চেষ্টা করছেন। তবে, তা কতটা কাটিয়ে উঠা সম্ভব হবে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা বেশ চিন্তিত।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর বাংলাদেশ সময় আজ শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ লাখ হাজার ৩০ হাজার ৯৩৭ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ১ লাখ ৬০ হাজার ৭৫৫ জনের। আর ৫ লাখ ৯৬ হাজার ৫৩৭ জন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ