সর্বশেষ

ইনাতগঞ্জে টিসিবি পণ্য উদ্ধারের ঘটনায় থানায় মামলা

নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী স্থানীয় লালাপুর গ্রামের হাজী হেলিম উদ্দিনের পুত্র ব্যবসায়ী কথিত যুবলীগ নামধারী নোমান হোসেন এর গোডাউন ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে গতকাল ১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাতে বিপুল পরিমান টিসিবি পণ্য সামগ্রী ও ভারতীয় সিগারেট উদ্ধার করা হয়।এ সময় ব্যবসায়ী নোমান হোসেনের ভাই আমান হোসেন (৩০) সহ ৪ কর্মচারীকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় জগন্নাথপুর থানার পুলিশ। পরে রাতেই জগন্নাথপুর থানার পুলিশ আটককৃতদের থানা থেকে ছেড়ে দেয়।
শুক্রবার সকালে উল্লেখিত ঘটনায় নোমান হোসেনকে প্রধান আসামী করে ২জনের বিরুদ্ধে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জগন্নাথপুর থানার এসআই অনুজ কুমার বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার অপর আসামী হলেন নবীগঞ্জের ইমাম ঐ গ্রামের বর্তমানে ওসমানী রোডের বাসিন্দা ইদ্দিছ উল্লার পুত্র টিসিবি ডিলার আব্দুল হাদী।
নবীগঞ্জ থানায় অপর আরো একটি মামলা দায়ের করা হবে বলে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিযান পরবর্তী সময় সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নবীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়নি।
ঘটনার ২ দিন অতিবাহিত হলেও পলাতক থাকা নোমান হোসেনকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এলাকাবাসী অবিলম্বে কালো বাজারী ব্যবসায়ী নোমানকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন।
এদিকে টিসিবি পণ্য মজুদকারী নোমান হোসেন মামলা থেকে নিজেকে রক্ষায় বিভিন্ন দপ্তরে দৌড়ঝাপ শুরু করেছে।
নোমান হোসেন যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত কিনা জানতে চাইলে ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আশাহীদ আলী জানান,ইনাতগঞ্জ যুবলীগের কমিটিতে তার নাম নেই। বিগত জাতীয় নির্বাচনে হঠাৎ করেই সে মিছিল ও বিভিন্ন সভায় যোগ দেয়। এরপর থেকেই সে যুবলীগ।
উল্লেখ্য,গতকাল বৃহস্পতিবার নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের লালাপুর গ্রামের হাজী হেলিম উদ্দিনের পুত্র নোমান হোসেন এর ইনাতগঞ্জ বাজারের দোকান ও পাশ্ববর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার আলীগঞ্জ বাজারে গুদামের ভিতরে অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা টিসিবির ন্যায্যমূল্যে বিক্রয়ের বিপুল পরিমাণ সোয়াবিন তেল ও চিনির বস্তা উদ্ধার করেছে যৌথ অভিযানে নবীগঞ্জ ও জগন্নাথপুর উপজেলা প্রশাসন।
নবীগঞ্জে অভিযান পরিচালনা করেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল ও জগন্নাথপুরের আলীগঞ্জ বাজারে জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইয়াসির আরাফাত । প্রশাসন জানায়, রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজারে নোমান হোসেন এর দোকানে অভিযান চালায় প্রশাসন। পরে ব্যবসায়ী নোমান হোসেনের ব্যবসায়ীক গুদাম পাশ্ববর্তী সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার আলীগঞ্জ বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় গুদামের ভিতরে অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা টিসিবির ৫ লিটার তেলের ১৯৬টি বোতল ও টিসিবির ৫০কেজির ৭৩টি চিনির বস্তা উদ্ধার করা হয়। এ সময় অসাধু ব্যবসায়ী নোমানকে গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ করে সাধারণ জনগণ। জগন্নাথপুর থানার এসআই মামলার বাদী ও তদন্তকারী কর্মকর্তা অনুজ কুমার দাশ জানান,এ ঘটনায় জগন্নাথপুর থানায় নোমান হোসেন ও ডিলার আব্দুল হাদীকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামী গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ