সর্বশেষ

হবিগঞ্জে করোনার উপসর্গ নিয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

হবিগঞ্জের মাধবপুরে মাহিয়া খাতুন নামে এক ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। মাহিয়ার জ্বর, সর্দি, কাশি, গলাব্যাথা ও শ্বাস কষ্ট ছিল বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার আউলিয়াবাদ গ্রামে নিজ বাড়িতেই তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের উপস্থিতিতে করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর সন্দেহের মধ্যে দিয়ে তার লাশ দাফন করা হয়েছে।

জানা যায়, সে উপজেলার বহরা ইউনিয়নের ফোকাস আইডিয়াল একাডেমীর ষষ্ঠ শ্রেণীর মেধাবী শিক্ষার্থী ছিল। গত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় এ+ পেয়েছিল। মাহিয়ার বাবা আলফাজ মিয়া বলেন গত ১১দিন ধরে সে জ্বর, কাশি ও গলাব্যাথায় আক্রান্তের কারণে স্থানীয় এক পল্লী চিকিৎসকের অধীনে চিকিৎসায় ছিল। বৃহস্পতিবার তার অবস্থা আরো অবনতি দেখা দিলে মাহিয়াকে মাধবপুর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক তার অবস্থা অবনতি দেখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া পরামর্শ দেন।

তার বাবা বলেন, আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া না নিয়ে মাহিয়াকে বাড়িতে নিয়ে আসি। এবং দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

মাধবপুর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার নাদিরুজ্জামান বলেন, মাহিয়ার ট্রাইফয়েট জ্বর, কাশি, গলাব্যাথা ও শ্বাস কষ্ট ছিল। আমরা তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেই।

মাধবপুর থানার মানতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম মুন্সী বলেন, খবর পেয়ে আমার তার বাড়িতে যাই এবং কম সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে তার লাশ দাফন করা হয়েছে। এ সময় স্থানীয় বাসিন্দাদের জানানো হয়েছে ওই পরিবারের যাতে কেউ আসা যাওয়া না করে। একই সাথে যারা কবর খুড়ছেন তাদেরকে বলে আসছি তারা যেন বাড়ি থেকে বের না হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ইশতিয়াক মামুন বলেন, তার স্যাম্পল সংগ্রহ করে সিলেট পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ