সর্বশেষ

মজুরীসহ ছুটির দাবিতে
মাধবপুরে চা শ্রমিকদের মানববন্ধন

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার তেলিয়াপাড়া চা বাগানের শ্রমিকরা বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে মজুরীসহ ছুটির দাবিতে মানববন্ধন করছে।

সোমবার (১৩ এপ্রিল) সকালে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে তেলিয়াপাড়া চা বাগান পঞ্চায়েত ও চা শ্রমিকদের আয়োজনে উক্ত মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

শতশত চা শ্রমিক সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।

তেলিয়াপাড়া চা বাগান পঞ্চায়েতের সাধারণ সম্পাদক লালন পাহান বলেন, সারাদেশে যখন করোনা ঝুঁকি এড়াতে সবকিছু বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, তখন চা শ্রমিকদের করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। পঞ্চায়েত সভাপতি খোকন তাঁতি বলেন, চা বাগানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করার কোন সুযোগ নেই। যদি একজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়, তাহলে এটাকে আর নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। তাই সরকার ও মালিক পক্ষের কাছে আমাদের দাবি চা শ্রমিকদের জীবন বাঁচাতে রেশন, মজুরিসহ ছুটি প্রদান করুন।

মাধবপুর উপজেলা আদিবাসী সমিতির সভাপতি সাইমন মুর্মু বলেন, চা শ্রমিকরা ভয়াবহ করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে। দেশের অর্থনীতিতে চা শ্রমিকদের যথেষ্ট অবদান আছে। সারাদেশে যখন করোনা ঝুঁকি এড়াতে ছুটি দেয়া হয়েছে, চা বাগান কেন খোলা থাকবে? চা শ্রমিকরা কি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে না?

চা শ্রমিকরা জানান, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ভারতের আসাম রাজ্যের ৮৬০টি চা বাগানের কাজ বন্ধ ঘোষণার খবর এলে তারাও এই দাবি জানান। নিজ ব্যবস্থায় এবং কিছু কিছু বাগান হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছে তবে তা এত অপ্রতুল যে অধিকাংশ শ্রমিকও সে সুযোগ পাচ্ছেন না। আমরা কাজ করি এক সঙ্গে। বিকেলে যখন পাতা জমা দেই তখন সবাই কাছাকাছি লাইনে দাঁড়িয়ে জমা দেই। এতে একজনের সংক্রমণ হলে সবার হতে পারে। ছুটি দেয়া হলে বেতন-ভাতা পরিশোধের বাধ্যবাধকতার অজুহাতে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বাগান মালিকরা। তাই আমাদের মজুরিসহ ছুটি নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ