সর্বশেষ

করোনা মোকাবেলায় শাহরুখের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

করোনার ত্রাণ তহবিলে অর্থদান করলেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। শুধু তাই নয়, একেবারে বড় বাজেটের ছবির মতোই প্ল্যান করে করোনার মোকাবেলায় নেমেছেন তিনি।
সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা শাহরুখের এই পরিকল্পনা নিয়ে প্রশংসা করেছেন।
করোনা প্রস্তুতি নিয়ে শাহরুখ স্যোশাল মিডিয়ায়জানিয়েছেন ‘রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট, নাইট রাইডার্স, মীর ফাউন্ডেশন আর রেড চিলি ভিএফএক্সের সম্মিলিত উদ্যোগে অর্থদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
তিনি লিখেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং অন্যান্য রাজ্যের নেতারা যেভাবে করোনার মতো মহামারীর মোকাবেলা করছেন তা এক কোথায় আসাধারণ। আমরা প্রাথমিকভাবে দিল্লি, কলকাতা, মুম্বাই– এই তিন শহরকে ফোকাস করছি। এই ক্ষেত্রে যা প্রয়োজন আমরা করব।’
তবে ঠিক কত টাকা তিনি দান করতে চলেছেন সে বিষয়ে সরাসরি কিছু বলেননি এ অভিনেতা।
তিনি জানিয়েছেন, করোনা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় কিট, মাস্ক বিতরণের কাজ ইতিমধ্যে শুরু করেছে তার সংস্থা।
শাহরুখ আরও লিখেছেন, ‘এই সংকটকে আমরা চিনি না। এই সংকটে এমন কোনো পদক্ষেপ হয়তো আমরা করব, যা কার্যকরী হবে না। আবার এমন কিছু পদক্ষেপ আচমকাই সাফল্য এনে দেবে। আমাদের একত্র হয়ে আর সাহসের সঙ্গে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে।’
এ ছাড়া কোন খাতে কত টাকা দেয়া হয়েছে ও দেশজুড়ে কোথায় কীভাবে কাজ করবে তার সংস্থা- সে বিষয়েও প্ল্যান পোস্ট করেছেন শাহরুখ।
আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ফান্ডে কলকাতা নাইট রাইডার্স, আইপিএল ফ্যাঞ্চাইজির মালিক গৌরী খান আর শাহরুখ খান, জুহি চাওলা মেটা, জয় মেটা অর্থ দান করবেন।
মহারাষ্ট্র মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট টাকা দেবে।
স্বাস্থ্য সুরক্ষা পরিষেবা প্রদানকারী মীর ফাউন্ডেশন এবং কেকেআর যৌথভাবে পশ্চিমবঙ্গ আর মহারাষ্ট্র সরকারের সঙ্গে কাজ করে ৫০ হাজার পিপিই কিট দেবে।
মীর ফাউন্ডেশন আর আর্থ ফাউন্ডেশন মুম্বাইয়ের ৫৫০০ পরিবারকে এক মাসের খাবার দেবে। নতুন করে ব্যবস্থা করা হবে রান্নাঘরের, যেখানে রোজ ২০০০ মানুষের রান্না করা হবে। এই রান্না পৌঁছে দেয়া হবে সেই সব মানুষের কাছে যারা ঠিকমতো খাবার পাচ্ছেন না।
রোটি ফাউন্ডেশন ইতিমধ্যে গরিব মানুষের কাছে মুম্বাই পুলিশের সাহায্যে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে। এবার শাহরুখের মীর ফাউন্ডেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ১০ হাজার মানুষের জন্য এক মাস ধরে তিন লাখ খাবারের প্যাকেট দেবে।
মীর ফাউন্ডেশন দিল্লির প্রান্তে থাকা ২৫০০ দিন মজুরের জন্য এক মাস চাল, ডাল, সবজি সরবরাহ করবে।
মীর ফাউন্ডেশন অ্যাসিড সারভাইভালদের জন্য মাসিক ভাতা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উত্তরপ্রদেশ, বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার জন্য।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ