সর্বশেষ

নবীগঞ্জে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে উপজেলা ফান্ডে অর্থদান

করোনা ভাইরাসের সংক্রমন রোধের জন্য নবীগঞ্জ উপজেলা ফান্ডে অর্থদান করলেন সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুরে নবীগঞ্জ উপজেলার নিবার্হী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পালের কাছে অর্থ প্রদান করা হয়। অর্থ অনুদান করেন, নবীগঞ্জ পূজা উদযাপন কমিটি, মহালয়া যুব সংঘ, কাতার প্রবাসী গৌরাঙ্গ লাল রায় উভয়ে ৫০ হাজার করে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা প্রদান করেন। এর পাশা পাশি ব্যক্তিগত অর্থ অনুদান করেন, শহরের ব্যবসায়ী উত্তম কুমার রায় ২৫ হাজার, রতন রায় ১০ হাজার, জেলা পরিষদের সদস্য আব্দুল মালিক ২৫ হাজার, এড. সুলতান মাহমুদ ১০ হাজার, ব্যবসায়ী হেলাল আহমেদ ১০ হাজার, সোহেল আহমেদ ২৫ হাজার, মোঃ খালেদ ১৫ হাজার, নিখিল আচার্য্য ১০ হাজার,অবনী চন্দ্র দাশ ২০ হাজার,সামছু মিয়া ১০ হাজার, গৌতম রায় ১০ হাজার, আশিক মিয়া ১০ হাজার,বাবুল চন্দ্র দাশ ৫ হাজার,তারাব উদ্দিন ১০ হাজার টাকা। নবীগঞ্জ এডুকেশন ট্রাষ্ট ইউকের চেয়ারম্যান মোজাহিদ চৌধুরী ব্যক্তিগত ভাবে চাউল ৪০০ কেজি,ডাল ৫০ কেজি, তৈল ৫০ লিটার, পিয়াজ ১০০ কেজি হত দ্ররিদ্য লোকদের কাছে পৌঁছানোর জন্য দান করেন উপজেলা প্রসাশনের কাছে।এ সময় উপস্থিত ছিলেন, নবীগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজিজুর রহমার, পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুখেন্দু রায় বাবুল, নিখিল আচার্য, নবীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব সাইফুল জাহান চৌধুরী, মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ ইয়াওর মিয়া,সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল আলম সুমন,প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলমগীর মিয়া, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি উত্তম কুমার পাল হিমেল, নবীগঞ্জ উপজেলার আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু দাশ রানা, গৌতম রায়,  নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওহি দেওয়ান চৌধুরী, মহালয়া যুব সংঘের সভাপতি নন্টি দাশ সামন্তসহ বিভিন্ন সামাজিক নেতৃবৃন্দগন।

এ সময় উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল বলেন, সরকারের পাশাপাশি শহরের ব্যবসায়ী, প্রবাসী ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা এই ভাবে অনুদান প্রধান করেন, তাহলে এলাকার খেটে খাওয়া অসহায় মানুষদের পাশে দাড়ানো সম্ভব হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ