সর্বশেষ

মাধবপুরে করোনা প্রতিরোধে প্রস্তুত নয় প্রাইভেট হাসপাতালগুলো

হবিগঞ্জের মাধবপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে এবং সচেতনতার লক্ষ্যে সকল স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা থাকলেও মাধবপুরে একাধিক ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে এমন কিছুর দেখা মেলেনি। জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রত্যেক হাসপাতালে আলাদা ব্যবস্থা করার কথা থাকলেও তা পরিলক্ষিত হয়নি। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) শহরের ৮ স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে দেখা গেছে, নির্দেশনা অনুযায়ী কোন টিতেই আলাদাভাবে কোন হাত ধোয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। প্রবেশদ্বারের আশেপাশে হাত জীবাণুমুক্ত করার জন্য প্রতিরোধ ব্যবস্থা নেই। রোগী, দর্শনার্থী এবং হাসপাতালে কর্মরতদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় মাধবপুর ডায়গনিষ্ট সেন্টার, ঢাকা ডায়গনিষ্ট সেন্টার, তিতাস মেডিকেল হাসপাতাল,দি কেয়ার হাসপাতাল, দি স্কয়ার ডায়গনিষ্ট সেন্টার, ডিজিটাল ডায়গনিষ্ট নেই হ্যান্ড স্যানিটাইজেশন ব্যবস্থা। কর্মরতদের হাতে দেখা যায়নি গ্লাভস। একাধিক হাসপাতালে কর্মরতদের মুখে মাস্ক দেখা যায়নি। মাধবপুর শহরের তিতাস শিশু জেনারেল হাসপাতালে দর্শনার্থী এবং রোগীদের সংক্রমণরোধে হাত ধোয়ার বিশেষ কোনো ব্যবস্থা পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিতাস শিশু জেনারেল হাসপাতালের কর্মকর্তা প্রান্তোষ জানান, আমরা এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্য বিভাগ হতে করোনা সচতেনতা সম্পর্কিত কোন পোস্টার বা কোন নির্দেশনা পাইনি। মাধবপুর উপজেলা স্বাস্হ কমপ্লেক্স পঃপঃ অফিসার ডাঃ এএইচএম ইশতিয়াক মামুন ফোন কলে জানান, মাধবপুর উপজেলা সদর হাসপাতালে করোনা প্রতিরোধ এর জন্য হাসপতালে প্রবেশের সময় হাত ধোয়ার ব্যবস্তা করে হয়েছে এবং যদি করোনা ভাইরাসে কোন ব্যক্তি আক্রান্ত হয় ৮ টি বেডের ব্যাবস্থা করা হয়েছে। উনি আরও বলে বেসরকারি হাসপাতালগুলো উপজেলা স্বাস্হ কমপ্লেক্সের নির্দেশের জন্য বসে থাকবে কেন সারা দেশে সরকারি ভাবে ঘোষণা দেয়া হয়ে দেশে সকল সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল গুলো করোনা প্রতিরোধের ব্যবস্তা গ্রহণ করতে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ