সর্বশেষ

স্বামীর সহযোগিতায় বন্ধু কর্তৃক স্ত্রীকে ধর্ষণ

বগুড়ায় স্বামীর সহযোগিতায় বন্ধু কর্তৃক এক গৃহবধুকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়েছে। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুক্ত স্বামী রফিকুল ইসলাম এলাকায় বাসের সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত আছেন। শনিবার দুপুরে শহরের শাহজাহানপুর উপজেলার চকলোকমান এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

গৃহবধূর নাম সামিয়া (২৪)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র মতে, দাম্পত্য বিবাদের জেরে স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করে সামিয়া। ঘটনার পর থেকে সামিয়া শহরের চকলোকমান এলাকার একটি ভাড়া বাড়ীতে ৭ বছরের একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সাবলেট হিসাবে বসবাস করছিল।

জানা যায়,

শনিবার বেলা আনুমানিক ১ টার দিকে সামিয়ার স্বামী তার এক বন্ধুকে সাথে নিয়ে ওই বাড়ীতে যায়। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী গৃহবধূ সামিয়ার বরাত দিয়ে স্থানীয় কৈইগাড়ী ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সাইফুল জানান, এসময় বাড়ীতে কেউ না থাকায় স্বামী রফিকুলের সহযোগিতায় তার বন্ধু সামিয়াকে চুল কেটে দেয় এবং জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে তারা সামিয়ার শরীরে দাহ্য কোন পদার্থ ঢেলে দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায় এবং পালিয়ে যায় ।

পরে সামিয়ার চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এদিকে ঘটনার পর খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে সামিয়াকে দেখতে যায়।

50% LikesVS
50% Dislikes
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ