সর্বশেষ

ব্রাজিলে বন্যা, এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৪৪

 

ডেস্ক রিপোর্ট : ব্রাজিলের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে কয়েকদিনের ঝড়বৃষ্টির ফলে সৃষ্ট বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৪ দাঁড়িয়েছে।
স্থানীয় সিভিল ডিফিন্স কর্মকর্তারা জানান, এ দুর্যোগে নিহত ছাড়াও আহত হয়েছে ১২ জন। তবে নিখোঁজের সংখ্যা ২৫ থেকে কমে ১৯ জনে দাঁড়িয়েছে।
এখন পর্যন্ত মৃতদের পরিচয় জানা যায়নি। এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে অনেকে ভূমিধসে বা ধসে পড়া ঘরবাড়ির ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়েছে।
কর্মকর্তারা জানান, মিনাস গারাইস রাজ্যের ৫৮টি শহর ও নগরীর প্রায় ১৭ হাজার লোককে তাদের ঘরবাড়ি থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। রাজ্যটির রাজধানী বেলো হোরিজন্টি এবং এর পার্শবর্তী অনেক এলাকা থেকেও লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়। এছাড়া ১০ হাজারের বেশি মানুষ পার্শবর্তী দু’টি রাজ্যে চলে যায়।
সামাজিক মাধ্যমে দেয়া বিভিন্ন ছবিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। এসব ছবির কোনটিতে বিভিন্ন ঘরবাড়ি ধসে পড়া, গাছপালা ও বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে পড়া এবং বিস্তৃত এলাকায় বন্যার দৃশ্য রয়েছে। এতে অনেক সেতুও ধসে পড়েছে। ভূমি ও আকাশ থেকে এসব ছবি তোলা হয়।
উল্লেখ্য, দীর্ঘ ১১০ বছরের রেকর্ড ভঙ্গ করা এ বর্ষণ রোববার থেমে গেলেও কর্তৃপক্ষ জানায়, বেলো হোরিজন্টি এলাকার বিভিন্ন শহরে শুক্রবার পর্যন্ত নতুন ভূমিধসের ঝুঁকি রয়েছে।
ভারত সফররত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো বলেন, এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে সরকার ‘সম্ভাব্য সবকিছু’ করছে। তিনি বলেন, এ ধরনের বিস্তৃত এলাকায় সবাইকে সেবা দেয়া কঠিন। বোলসোনারো বর্তমানে সরকারি এক সফরে ভারতে রয়েছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ